ছবি: সংগৃহীত

অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশকে ৬০০ মিলিয়ন ডলার বা দেশি মুদ্রায় প্রায় পৌনে ৬ হাজার কোটি টাকা বাজেট সাপোর্ট দেবে জাপান ভিত্তিক উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা জাইকা। এ বিষয়ে সংস্থাটি ইতিবাচক বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

আজ সোমবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে পরিকল্পনামন্ত্রীর সঙ্গে জাইকার বিদায়ী রাষ্ট্রদূত ইয়ো হায়াকাওয়া এবং নতুন রাষ্ট্রদূত ইচিগুচি তোমোহিডের সাক্ষাৎ শেষে পরিকল্পনা মন্ত্রী এ আশার কথা বলেন।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘জাইকার বিদায়ী এবং নতুন প্রতিনিধি সঙ্গে আলোচনায় বুঝতে পারলাম তারা বাজেট সহায়তা নিয়ে ইতিবাচক। তাদের কাছ থেকে ৬০০ মিলিয়ন ডলার সাপোর্ট পেতে পারি। এটা আলোচনা পর্যায়ে আছে, এখনো চূড়ান্ত হয়নি। যেহেতু আমি সরকারের একটা দায়িত্বে আছি তাই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আমার বিশ্বাস সব প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর আমরা বাজেট সাপোর্ট পাবো।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আড়াই হাজারে জাপানি অর্থায়নে ইকোনমিক জোন হচ্ছে। প্রকল্পটি দ্রুত শেষ করতে চায় জাইকা। মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুতে জাপান কাজ করছে। গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়নে আমরা আরও কাজ করতে চাই। এই খাতে জাইকাও সহায়তা করতে আগ্রহী। আমাদের নৌবন্দরগুলো, অবকাঠামো খাত, রেল, সমুদ্র খাত নিয়ে কাজ করতে চায় জাইকা।’

হায়াকাওয়া বলেন, ‘করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক অবস্থা বাংলাদেশ খুব দ্রুত ও সুন্দর করে সামলে নিয়েছে। নানা চ্যালেঞ্জের মত বাংলাদেশ তার অগ্রগতি ধরে রেখেছে।’

নতুন প্রতিনিধি ইচিগুচি বলেন, ‘আমি গত ১০ বছর থেকেই জাইকার প্রধান কার্যালয়ে বাংলাদেশ নিয়ে কাজ করেছি। মেট্রোরেল, মেঘনা-গোমতি-কাঁচপুর সেতু, মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ বাংলাদেশের নানা প্রকল্পে আমি অবদান রেখেছি। এতে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করার আমার কিছু পূর্ব অভিজ্ঞতা হয়েছে। যা আমাকে সাহায্য করবে।’

Bangladeshpost24.com

Previous articleসাজেদা চৌধুরীর আসনে উপনির্বাচন ৫ই নভেম্বর, সব কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা
Next articleবিএনপি নেতারা বড় মজায় আছেনঃ ওবায়দুল কাদের