Home প্রতিবেদন - মতামত - কলাম ৫৭টি বুর্জ খলিফার সমান,কেওক্রাডং থেকে উঁচু !

৫৭টি বুর্জ খলিফার সমান,কেওক্রাডং থেকে উঁচু !

অনলাইন ডেস্কঃমাটির গভীর থেকে শুরু। এরপর নানা উপকরণের মাধ্যমে ধীরে ধীরে গড়ে উঠেছে পদ্মা সেতুর পূর্ণাঙ্গ অবয়ব। এখন এই সেতু যান চলাচলের অপেক্ষায়। কোন উপকরণ কী পরিমাণে লেগেছে—নিশ্চয় এ বিষয়ে মানুষের আগ্রহ আছে। তবে উপকরণের সঙ্গে বিশ্বের অনন্য স্থাপনা কিংবা প্রকৃতির আশ্চর্যের সঙ্গে মিলিয়ে নিলে কেমন দেখায়?

৫৭টি বুর্জ খলিফার সমান

পদ্মায় মূল সেতু, নদীশাসন ও সংযোগ সড়কের নির্মাণকাজে মোট বালু ব্যবহার করা হয়েছে প্রায় ৬৫ লাখ ঘনমিটার, যা দিয়ে ১৯ কোটি ১২ লাখ ৮৭ হাজার বর্গফুট আয়তনের ভবন তৈরি করা যাবে। এই আয়তন প্রায় ৫৭টি বুর্জ খলিফার সমান। বিশ্বের অন্যতম উঁচু ভবন দুবাইয়ের বুর্জ খলিফার সব তলা মিলিয়ে আয়তন ৩৩ লাখ ৩১ হাজার বর্গফুট। পদ্মা সেতুতে ব্যবহৃত বালুর সবই দেশীয়

পদ্মা সেতুর নদীশাসনে প্রায় ২ কোটি ১৭ লাখ জিও ব্যাগ ব্যবহার হয়েছে। এর কোনো কোনোটির ওজন ৮০০ কেজি। কিছু আবার ১২৫ কেজির। এসব জিও ব্যাগে বালু ভরে নদীর তলদেশে ফেলা হয়েছে। নদীতে পাথর ফেলা হয়েছে প্রায় সোয়া ১০ লাখ ঘনমিটার। এই পরিমাণ পাথরকে ১৩ হাজার বর্গফুট জুড়ে স্তূপ করে রাখলে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বত কেওক্রাডংয়ের থেকেও উঁচু দেখাবে।

 

bangladeshpost24.com

Previous articleখালেদা জিয়া হবেন প্রধানমন্ত্রী, না হলে তারেক রহমান -শেখ হাসিনার প্রশ্নের জবাব দিলেন মির্জা ফখরুল
Next articleবড় লোক হওয়ার এতই উচ্চাকাঙ্ক্ষা !