ছবি: সংগৃহীত
বাংলায় সংবাদ 🔊

অনলাইন ডেস্কঃ বিজ্ঞানের উৎকর্ষে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এখন তৈরি হচ্ছে বৈদ্যুতিক গাড়ি। এসব গাড়ির অন্যতম বিশেষত্ব হলো চিপ ও মাইক্রোচিপ, যেগুলোতে ব্যবহার হয় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা। প্রযুক্তি যেভাবে এগোচ্ছে, তাতে ভবিষ্যতে বৈদ্যুতিক গাড়ি চাহিদা আরও বাড়বে বৈকি। সেই সঙ্গে উন্নত হবে এসব গাড়িতে ব্যবহৃত চিপ ও মাইক্রোচিপও।

বর্তমানে বৈদ্যুতিক গাড়ি উৎপাদনের দিক থেকে বিশ্ববাজারে সবার ওপরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের টেসলা। অটো ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান ভানারমার একটি নতুন গবেষণা অনুযায়ী, ২০৩৩ সালের মধ্যে মার্কিন প্রতিষ্ঠানের বৈদ্যুতিক গাড়িতে নতুন যে মাইক্রোপ্রসেসর ব্যবহার করা হবে, তা কার্যকারিতা এবং স্মার্টনেসে মানুষকেও ছাড়িয়ে যাবে।

ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, টেসলার নতুন মাইক্রোপ্রসেসর ডি১-এর প্রতি সেকেন্ডে ৩৬২ ট্রিলিয়ন কাজ করার ক্ষমতা আছে, যা অন্য যেকোনো প্রতিষ্ঠানের গাড়িতে ব্যবহৃত মাইক্রোপ্রসেসরের চেয়ে তুলনামূলকভাবে বেশি শক্তিশালী। মাইক্রোপ্রসেসরটির প্রসেসর স্পিড (প্রক্রিয়াকরণে যে সময় লাগে) ইতোমধ্যেই মানুষের মস্তিষ্কের সেকেন্ডপ্রতি এক কোয়াড্রিলিয়ন অপারেশনের এক-তৃতীয়াংশের (৩৬%) বেশি।

ভানারমার পক্ষ থেকে বলা হয়, টেসলার বৈদ্যুতিক গাড়ির স্বয়ংক্রিয় ড্রাইভিং ফাংশনে এ চিপগুলো সহায়ক ভূমিকা রেখেছে। তবে ভবিষ্যতে এই চিপগুলোর কার্যকারিতা বাড়ার ভালো সম্ভাবনা রয়েছে।

টেসলার পূর্ববর্তী এবং বর্তমান মডেলগুলো বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, নতুন মাইক্রোপ্রসেসর ডি১ চিপের ক্ষমতা প্রতি বছর ৪৮৬% হারে বাড়ছে। আগামী ১১ বছরের মধ্যে অর্থাৎ ২০৩৩ সালের মধ্যে টেসলার স্বয়ংক্রিয় চালিত কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার প্রসেসরের কার্যক্ষমতা সেকেন্ডপ্রতি এক কোয়াড্রিলিয়ন অপারেশন করা মানুষের মস্তিষ্ককেও ছাড়িয়ে যাবে।

সাধারণত মানব মস্তিষ্ক পরিপূর্ণ কর্মক্ষমতা পায় ২৫ বছর বয়সে। তবে ২ থেকে ২৫ বছর বয়স পর্যন্ত মস্তিষ্কের কার্যকারিতা যে হারে বৃদ্ধি পায়, প্রথম বছরে সেটি তিনগুণ হারে বাড়ে। অন্যদিকে, টেসলার মাইক্রোচিপে ব্যবহৃত কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ৮ বছর কমে অর্থাৎ ১৭ বছর বয়সেই সেই সক্ষমতায় পৌঁছে যাবে।

ঈলন মাস্কের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান টেসলা খুব শিগগিরই নতুন মাইক্রোপ্রসেসর ডি১ চিপ তৈরি করবে। মাইক্রোচিপটি  ডোজো সুপার কম্পিউটার প্ল্যাটফর্মের একটি অংশ। তাছাড়া, প্রতিষ্ঠানের অ্যাক্সেসযোগ্য অটোপাইলট স্বয়ংক্রিয় ড্রাইভিং সিস্টেমের অংশ এই চিপটি।

Bangladeshpost24.com

Previous articleবিমান বন্দরে লাগেজ ভাঙ্গা ও অর্থচুরির সত্যতা পায়নি কর্তৃপক্ষ
Next articleপি কে হালদারকে মার্চের মধ্যে ফেরত দেবে ইডি