অনলাইন ডেস্ক: আগামী ১০ই ডিসেম্বর রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শর্তসাপেক্ষে বিএনপি সমাবেশের অনুমোদন পাবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর সদরঘাটে একটি অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ তথ্য জানান। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপি একটি রাজনৈতিক দল। তাদের রাজনীতি করার অধিকার রয়েছে। শর্তসাপেক্ষে আগামী ১০ই ডিসেম্বর বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, সমাবেশের নামে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটানো যাবে না। প্রতিবন্ধকতা ও জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করা যাবে না। আসাদুজ্জামান খান বলেন, বিএনপি নিয়মতান্ত্রিকভাবে গঠনমূলক রাজনীতি করবে। এখানে আমাদের বাধা দেওয়ার কিছু নেই।

মন্ত্রী বলেন, তবে তারা রাজনৈতিক নিয়ম ভঙ্গ করে কিছু করলে তখনই আমাদের অবজেকশন থাকে। সেটা আমরা সবসময় বলে আসছি। তাদের আমরা কখনও নিষেধ করিনি। তারা সারাদেশে মিটিং করছে, সমাবেশ করছে।

তিনি আরও বলেন, ঢাকায় সমাবেশ করতেও আমরা মানা করিনি। আমরা শুধু আশঙ্কার কথাগুলো বলেছি। আপনারা যে ২৫-৩০ লাখ লোক নিয়ে আসবেন, তাদের কোথায় বসাবেন? কোথায় থাকবে তারা? এতে তো পুরো ঢাকা শহর অচল হয়ে যাবে। তাই আমরা তাদের বলেছি, বড় কোনো জায়গায় যান।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি দেওয়ার বিষয়টি বিএনপি জানিয়ে দেওয়া হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, বিএনপির একটি সর্বশেষ দাবি ছিল সোহরাওয়ার্দী উদ্যান। আমাদের তরফ থেকে ডিএমপি কমিশনারকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাও তাই। তাদের জানিয়ে দেওয়া হবে। তারা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সভাটি করতে পারবেন।

এর আগে সদরঘাটে সুন্দরবন নেভিগেশন গ্রুপের মালিকানাধীন এমভি সুন্দরবন-১৬ লঞ্চের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন মন্ত্রী। এ অনুষ্ঠানে তিনি প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

লঞ্চের উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী। এছাড়া জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব আমিনুল ইসলাম খান, নৌপরিবহন সচিব মোস্তফা কামাল, নৌ-পুলিশের অতিরিক্ত মহাপুলিশ পরিদর্শক শফিকুল ইসলামসহ অন্যান্য লঞ্চের মালিক ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

Bangladeshpost24.com 

Previous articleজঙ্গি ছিনতাইঃ প্রধান সমন্বয়কের দায়িত্বে ছিল রাফি
Next articleজোড়া গোলে ব্রাজিলকে জয়ের পথ দেখালেন রিচার্লিসন