অনলাইন ডেস্কঃ জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান কাজী ফিরোজ রশীদ এমপি বলেছেন, যেভাবে জ্বালানী তেলের মূল্য বাড়ানো হয়েছে তা নজিরবিহীন। ইতিহাসে নেই একবারে জ্বালানী তেলের এত মূল্যবৃদ্ধি। যারা পেট্রোলিয়ামের হাজার হাজার কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে জাতি তাদের ক্ষমা করবে না। কিছু আমলা আর ব্যবসায়ী সরকারকে ঘিরে রেখেছে, তাদের দুর্নীতির কারইেই দেশে দুরবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। যারা পাসপোর্টে ভিসা লাগিয়ে রেখেছেন, তারা পালানোর পথ পাবে না। আমরা দুর্নীতিবাজদের আটকে বিচারের মুখোমুখি করবো। পাকিস্তান ও বিএনপি এদেশে লুটপাট করেছে, এখন লুটপাট করছে কিছু আমলা, ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ। এদেশে আর কাউকে লুটপাট করতে দেবো না। সরকার বোঝেনা দেশের মানুষ কষ্টে আছে। আমরা আর কারো ক্ষমতার সিঁড়ি হবো না। আমরা তিনশো আসনেই নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছি।

মঙ্গলবার বিকেলে মধ্য বাড্ডার একটি চাইনিজ রেস্টুরেন্টে বাড্ডা থানা জাতীয় পার্টির সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় কাজী ফিরোজ রশীদ এ কথা বলেন।

সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, জাতীয় পার্টি দেশের সবচেয়ে সম্ভাবনাময় রাজনৈতিক শক্তি। দেশের মানুষ এক বুক আশা নিয়ে জাতীয় পার্টির দিকে তাকিয়ে আছেন। আমরা মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করতেই রাজনীতি করছি। আমরা পল্লীবন্ধুর নতুন বাংলাদেশ গড়তে সংগ্রাম করছি।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি বলেছেন, জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধিতে মানুষ কষ্টে আছে। পরিবার চালাতে হিমশিম অবস্থা সাধারণ মানুষের। জ্বালানী তেলের দাম না কমালে আমরা রাজপথে আন্দোলন করে সরকারকে বাধ্য করবো। জাতীয় পার্টি গণমানুষের আস্থার স্থল।

bangladeshpost24.com

Previous articleহেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় আহত লেঃ কর্ণেল মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেনের মৃত্যু
Next articleজনবিচ্ছিন্নদের ৭ দলীয় জোট রাজনীতিতে গুরুত্বহীন -তথ্যমন্ত্রী