অনলাইন ডেস্ক: সরকারের নির্যাতনের জবাব জনগণ আন্দোলনের মাধ্য‌মেই দেবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএন‌পি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সোমবার ধানমন্ডির ল্যাবএইডে পটুয়াখালী-৩ আসনের সাবেক সাংসদ শাহজাহান খানের মৃত্যুর সংবাদের পর সেখানে পরিবারের সদস্যদের সান্ত্বনা জানানো শেষে বিএনপি মহাসচিব সাংবাদিকদের কাছে এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, আওয়ামী সন্ত্রাসীদের অত্যাচার-নির্যাতনে ইতোমধ্যেই চলমান আন্দোলনে আমাদের সাত জন গুলিবিদ্ধ হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন। দুই জন আওয়ামী লীগের নির্যাতনে প্রাণ হারিয়েছেন। আর আজকে একজন সাবেক সংসদ সদস্য তাদের নির্যাতনে মারা গে‌লেন।

এই অত্যাচার-নির্যাতনের বিরুদ্ধে জনগণ জেগে উঠেছে। আমরা বিশ্বাস করি এই আন্দোলনের মধ্য দিয়ে শাহজাহান খানের মৃত্যুর ঋণ পরিশোধ করতে সক্ষম হবো। জনগণ এরকম অত্যাচা‌রের উপযুক্ত জবাব দেবে।

প্রসঙ্গত, গত ৪ঠা নভেম্বর পটুয়াখালী থেকে বরিশালের বিভাগীয় সমাবেশে যাওয়ার পথে তেলিখালী এলাকা অতিক্রমকালে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা তার ওপর হামলা চালালে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে অবস্থার অবনতি হলে গত ২২শে নভেম্বর তা‌কে ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজ সকা‌লে মারা যান শাহজাহান খান।

মির্জা ফখরুল বলেন, এই মৃত্যু কোনও স্বাভাবিক মৃত্যু নয়। তিনি বরিশালের বিভাগীয় সমাবেশে যাওয়ার পথে আওয়ামী সন্ত্রাসীদের হাতে আক্রান্ত হয়েছেন এবং তাকে পিটিয়ে মারাত্মকভাবে সেদিন আহত করা হয়েছিল। এই আহত হওয়ার পরে তার কিডনি ফেটে যায়। তার সমস্ত শরীরে বিষাক্ত রক্ত আসে। তারই প্রতি‌ক্রিয়ায় আজকে সকালে তিনি মারা গেছেন।

ফখরুল ব‌লেন, শাহজাহান খানের মৃত্যু দক্ষিণাঞ্চলে জাতীয়তাবাদী রাজনীতির জন্য বিরাট শূন্যতা সৃষ্টি করবে। আজীবন সংগ্রামী, ত্যাগী রাজনৈতিক নেতা তার জনগণের কাছে একজন অভিভাবক হিসেবে পরিচিত ছিলেন। আমরা বিএনপির চেয়ারপারসন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষ থেকে তার রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। গভীর শোক প্রকাশ করছি এবং তার পরিবারের প্রতি আমাদের সমবেদনা জানা‌চ্ছি।

বিএনপি মহাসচিবের স‌ঙ্গে প্রয়াত শাহজাহান খানের মরদেহ দেখ‌তে হাসপাতা‌লে যান দলের কেন্দ্রীয় নেতা আমিরুজ্জামান শিমুল, আইনজীবী ফোরামের নুরুল ইসলাম জাহিদসহ পটুয়াখালীর নেতারা।

শাহজাহান খানের ছেলে শিপলু খান বলেন, তার বাবা সকাল সাড়ে ১০টায় মারা যান। মঙ্গলবার সকাল ৯টায় পটুয়াখালী জেলা কার্যালয়ের সামনে, ১১টায় দশমিনা উপজেলায়, বাদ জোহর গলাচিপা উপজেলায় এবং শেষ জানাজা বিকাল তিনটায় চিকনিকান্দি ইউনিয়নে হবে। সেখানে তার বাবা শাহজাহান খান‌কে দাফন করা হবে।

 

Bangladeshpost24.com 

Previous articleটাকায় ঋণ পাবে বিদেশি শিল্প প্রতিষ্ঠানঃ কেন্দ্রীয় ব্যাংক
Next article২৫ হাজারের জন্য কোমরে দড়ি, লক্ষ-কোটির জন্য কিছুই হয় নাঃ আপিল বিভাগ