অনলাইন ডেস্কঃ গণতান্ত্রিক আন্দোলনের কোনো আত্মত্যাগই বৃথা যাবে না উল্লেখ করে জাতীয়তাবাদী যুবদলের সভাপতি সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু বলেছেন, ‘শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে যারা হামলা করে, গুলি করে বিএনপি নেতাকর্মীদের রক্ত ঝরাচ্ছে তাদের বিচার একদিন হবেই।’

‘প্রতিটি রক্তের ফোটার প্রতিশোধ নেওয়া হবে’-এমন মন্তব্যও করেন যুবদল সভাপতি।

বুধবার রাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মুন্সীগঞ্জ জেলা বিএনপির আহত নেতাকর্মীদের দেখতে গিয়ে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

এর আগে বিকালে মুন্সীগঞ্জ সদরের মুক্তারপুরে পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে গুরুতর আহত জাহাঙ্গির মাদবর, তারেক হোসেন ও শাওনকে মুন্সীগঞ্জ থেকে ঢাকায় আনা হয়।

সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু বলেন, ‘এই অবৈধ স্বৈরাচারী সরকারের পতনের জন্য জনগণ রাজপথে নেমে এসেছে। এখন তাদের আজ্ঞাবাহ আর দলীয় পুলিশ দিয়ে, প্রশাসন দিয়ে আর রক্ষা হবে না। পতন তাদের অনিবার্য।’

এসময় উপস্থিত ছিলেন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মোনায়েম মুন্না। তারা এখনো আন্দোলন শুরুই করেননি উল্লেখ করে যুবদল সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আন্দোলনতো হবে সামনে। তখন পালিয়েও রেহাই পাবেন না।’

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উদ্দেশ্যে মোনায়েম মুন্না বলেন, ‘যারা আজকে অতি উৎসাহি হয়ে গণতন্ত্রকামীদের বুকে গুলি করছেন তাদেরকে জনতার বিচারের মুখোমুখি করা হবে।’

এসময় যুবদলের কেন্দ্রীয় নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

 

Bangladeshpost24.com

Previous articleমির্জা ফখরুল পাকিস্তানেরই মুখপাত্রঃ আমু
Next articleরাশিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আরও ক্ষমতা পাচ্ছে হোয়াইট হাউজ