অনলাইন ডেস্ক: লোডশেডিং ও জ্বালানি খাতে অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদে সারাদেশে তিনদিন বিক্ষোভ কর্মসূচি করবে বিএনপি। মঙ্গলবার বিকালে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। মির্জা ফখরুল বলেন, ‘‘ লোডশেডিং ও জ্বালানি খাতে অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদ জানাতে আগামী ২৯ ও ৩০ জুলাই ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিন ও অন্যান্য মহানগর এবং সব জেলা পর্যায়ে আগামী ৩১ জুলাই প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত হয়েছে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে ।” ২৯ জুলাই ঢাকা মহানগর উত্তর ও ৩০ জুলাই ঢাকা মহানগর দক্ষিন বিএনপি বিক্ষোভ কর্মসূচির আয়োজন করবে। সোমবার বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে দলের স্থায়ী কমিটির সভার বিভিন্ন সিদ্ধান্ত জানাতে মঙ্গলবার বিকালে সংবাদ সম্মেলন করেন বিএনপি মহাসচিব। বিএনপি মহাসচিব বলেন শহরে দুই থেকে তিন ঘন্টা এবং গ্রামাঞ্চলে পাঁচ থেকে ছয় ঘন্টা লোডশেডিং জনজীবনকে অতিষ্ঠ করে তুলেছে। শিল্পে ও কৃষিতে উৎপাদন ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। অভিযোগ করেন ‘সরকারের নিজস্ব ব্যবসায়ীদের মুনাফার স্বার্থের জন্য পরিকল্পিতভাবে নিয়মনীতি বিসর্জন দিয়ে চাহিদার অতিরিক্ত বিদ্যুত কেন্দ্র স্থাপন, কুইক রেন্টাল পাওয়ার প্ল্যান্টের সুযোগ প্রদানের ভয়াবহ দুর্নীতির কারণে ক্যাপাসিটি চার্জ বাবদ প্রচুর অর্থ ব্যয় করার ফলে বর্তমানে এই অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে। চুরি করতেই দেশে গ্যাস উৎপাদন বৃদ্ধির উদ্যোগ না নিয়ে বিদেশ থেকে গ্যাস আমদানির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার-এমন অভিযোগ করেন বিএনপি মহাসচিব। এর মধ্য দিয়ে ক্ষমতাসীনরা দলীয় ব্যবসায়ীদের সাথে নিজেদের দুর্নীতি ও অনৈতিক সম্পদের পাহাড় গড়ে তুলবে বলেও মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল। বলেন, লোভের কারণে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতকে অন্ধকারের পথে নিয়ে গেছে সরকার।

Bangladeshpost24.com

Previous articleনির্বাচনকে বাঁচাতে না পারলে রাজনীতি উধাও হবেঃ প্রধান নির্বাচন কমিশনার
Next articleস্থলবন্দর ব্যবহারে ভারতীয়দের মতো একই সুবিধা চায় বাংলাদেশ