অনলাইন ডেস্ক: বিশ্বের সবচেয়ে বড় সক্রিয় আগ্নেয়গিরি মাউনা লোয়ায় গত চার দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো লাভা উদগীরণ শুরু হয়েছে। আগ্নেয়গিরিটির অবস্থান যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চলীয় হাওয়াই অঙ্গরাজ্যে। স্থানীয় সময় রোববার রাতে আগ্নেয়গিরিটিতে লাভা উদগীরণ শুরু হয়। খবর বিবিসির।

রয়টার্স জানায়, এরই মধ্যে স্থানীয়দের জন্য সতর্কবার্তার মাত্রা বৃদ্ধি করেছে প্রশাসন। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, লাভার প্রবাহ আগ্নেয়গিরির জ্বালামুখের আশপাশে রয়েছে। আপাতত তা নিম্নাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি কম।

বিবিসির খবরে বলা হয়, সোমবার মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ প্রতিষ্ঠান ইউএসজিএস সতর্ক করে বলেছে, পরিস্থিতি যেকোনো সময় মারাত্মক রূপ ধারণ করতে পারে। তবে এখন পর্যন্ত আশপাশ এলাকার লোকজন সরিয়ে নেওয়ার কাজ শুরু হয়নি।

ইউএসজিএস জানিয়েছে, ১৮৪৩ সালের পর থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্বের সবচেয়ে বড় সক্রিয় এই আগ্নেয়গিরি থেকে ৩৩ বার লাভা উদগীরণের ঘটনা ঘটেছে। সর্বশেষ ১৯৮৪ সালে আগ্নেয়গিরিটি থেকে টানা ২২ দিন লাভা উদগীরণ হয়েছিল। ওই সময় আগ্নেয়গিরি থেকে মাত্র ৭ কিলোমিটার দূরে হিলো শহরে লাভা ছড়িয়ে পড়েছিল।

ইউএসজিএস বলছে, আগ্নেয়গিরির এ বিস্ফোরণের ঘটনা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণে রাখা হচ্ছে। প্রয়োজনে সতর্কমাত্রা আরও বাড়ানো হবে এবং স্থানীয়দের নিরাপত্তায় জরুরি ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হবে।

 

 

Bangladeshpost24.com 

Previous articleইউক্রেন যুদ্ধে শীতকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে রাশিয়াঃ ন্যাটো
Next articleরোহিঙ্গাদের জন্য সাড়ে ৭ মিলিয়ন ডলার দেবে নেদারল্যান্ডস