অনলাইন ডেস্কঃ সংযুক্ত আরব আমিরাতে নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের প্রথম ম্যাচেই জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলার লড়াইয়ে আইরিশ নারী দল ছিল টাইগ্রেসদের পথে সব চেয়ে বড় বাঁধা। গতকাল আবুধাবিতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে ১৪ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ নারী দল।

নিগার সুলতানাদের দেওয়া ১৪৪ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে দুই বল বাকি থাকতে ১২৯ রানে অলআউট হয়ে যায় আয়ারল্যান্ড। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই চাপে পড়ে আইরিশরা। ৫ রানেই তারা হারায় দুই উইকেট। প্রথমে গ্যাবি লুইসকে বোল্ড করেন সানজিদা আক্তার মেঘলা। এরপর ওরলা প্রেনডারগাস্টকে সাজঘরের পথ দেখান সালমা খাতুন।

তারপর অবশ্য ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করে আইরিশ মেয়েরা। অ্যামি হান্টারের সঙ্গে ৪৫ রানের জুটি গড়েন অধিনায়ক লরা ডেলানি। রান আউটে কাটা পড়েন অ্যামি। ৩০ বলে ২৮ রান করে সালমার বলে সাজঘরে ফিরেন লরা।

কিন্তু এরপর আক্রমণাত্মক হয়ে উঠেছিলেন এইমার রিচার্ডসন। ৪ চার ও ১ ছক্কায় ২ বলে ৪০ রান করা এ ব্যাটারও রান আউটে কাটা পড়েন। তার বিদায়ের পর আর অতি দ্রুত অলআউট হয়ে যায় আইরিশরা। বাংলাদেশের পক্ষে ১৯ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়েছেন সালমা খাতুন। দুই উইকেট করে পেয়েছেন মেঘলা ও নাহিদা আক্তার।

এর আগে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে দারুণ শুরু পায় বাংলাদেশ। তিন চারে ১৬ বলে ১৬ রান করে লেগ বি ফোরের ফাঁদে পড়ে হয়ে রিচার্ডসনের বলে মুর্শিদা খাতুন ফিরলে ভাঙে উদ্বোধনী জুটি। এরপর শামীমা সুলতানার সঙ্গে জুটি বাঁধেন অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি। ৭ চারে ৪০ বলে ৪৮ রান করে শামীমা সাজঘরে ফিরলেও এক প্রান্তে দাড়িয়ে ছিলেন নিগার।

শামীমা ফিরলেও ঠিকই ফিফটি তুলে নেন অধিনায়ক নিগার সুলতানা। শুরুতে তিনি কিছুটা ধীরস্থির খেললেও সময়ের সঙ্গে রান তোলার গতি বাড়ান। শেষ অবধি কেলির বলে আউট হওয়ার আগে ১০ চার ও ১ ছক্কায় ৫৩ বলে ৬৭ রান করেন টাইগ্রেস অধিনায়ক। ১৪৩ রানের সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ।

ম্যাচসেরা হন টাইগ্রেস অধিনায়ক নিগার সুলতানা।

 

 

Bangladeshpost24.com

Previous article১৫ বছরের কিশোরকে প্রিমিয়ার লিগে নামিয়ে আর্সেনালের রেকর্ড
Next articleযেভাবে বিদায় জানানো হচ্ছে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে