আমির হোসেন আমু




অনলাইন ডেস্কঃ বিএনপি আবারও সংঘাত তৈরি করে অসাংবিধানিক শক্তিকে ক্ষমতায় বসাতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন ১৪ দলের নেতারা। তারা বলেন, নাকশকতা করে কোনো লাভ হবে না, কমিশনের রোডম্যাপ অনুযায়ী জাতীয় নির্বাচন হবে। আর বিএনপির নৈরাজ্য প্রতিহত, প্রতিরোধ করতে ১৪ দল প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন জোটের নেতারা।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ইনস্টিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স (আইডিইবি) মিলনায়তনে ‘বিএনপিসহ দেশবিরোধী অপশক্তির সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও ষড়যন্ত্র’র প্রতিবাদে ১৪ দলের এক সমাবেশ ও আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য ও ১৪ দলীয় জোটের সমন্বয়ক আমির হোসেন আমু বলেন, ফাইনাল খেলা পর্যন্ত আপনাদের আসতে হবে না কষ্ট করে। আপনারা ফাইনাল খেলার প্লেয়ার না। ফাইনালের আগে যে লীগ খেলা, সেই খেলা খেলতে খেলতেই তাদের পা-তো ভেঙে যাবে। এটা তারা কি বুঝতে পারে না?

তিনি বলেন, গত দুটি নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করেনি। এর মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে বিএনপি নির্বাচন, জনগণকে ভয় পায়।

কৌশলে সবসময় বিএনপি নির্বাচন থেকে দূরে থাকতে চায় দাবি করে তিনি বলেন, দূরে সরে আছেন এবং ভবিষ্যতেও থাকবেন, এটা আমরা জানি, এটা বুঝি।

আমু বলেন, আওয়ামী লীগ বিশৃঙ্খল অবস্থা চায় না। তবে করার অপচেষ্টা করলে আমরা ঘরে বসে থাকবো না। জনগণের পাশে দাঁড়িয়ে প্রতিহত করবো।

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন—বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, কামরুল ইসলাম, জাতীয় পার্টির (জেপি) মহাসচিব শেখ শহিদুল ইসলাম, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারি, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন প্রমুখ।

Bangladeshpost24.com

Previous articleএবারের পূজা শঙ্কামুক্ত নয়ঃ বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ
Next article১০ আঙ্গুলের ছাপ না থাকলে ভোট দেয়া যাবে না: ইসি