Bangladeshpost24.com
ছবি: সংগৃহীত

অনলাইন ডেস্কঃ অনলাইনে প্রতারণার বিষয়টি এখন পুরোনো কিছু নয় বর্তমানে এটি হার হামেশাই ঘটছে। প্রতিদিনই কেউ না কেউ ব্যক্তিগত পর্যায়ে প্রতারণার শিকার হচ্ছেন। এখন শুধু ব্যক্তিই নন এর ফাঁদে পড়ছে প্রতিষ্ঠানও। এবার তেমনি একটি প্রতিষ্ঠানের নাম জানা গেছে।

অনলাইনে প্রতারণার শিকার হওয়া সেই প্রতিষ্ঠান হচ্ছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল। আইসিসি নামে যা পুরো বিশ্বে পরিচিত। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি এবার বাংলাদেশি মুদ্রায় ২৫ কোটি টাকার প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্রিকবাজ।

তবে আইসিসি এ বিষয়ে এখনো মুখ খোলেনি। সংস্থাটির কর্মকর্তারাও কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি। আইসিসি কিছু না বললেও খেলার ওয়েবসাইটটি জানিয়েছে, এরই মধ্যে ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি তদন্তও শুরু করেছে।

ওয়েবসাইটি জানিয়েছে, এই ঘটনার সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি সূত্র জড়িত। সমাধানের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আইন শৃঙ্খলা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনাও শুরু করেছে আইসিসি। বেশ কয়েকটি ঘটনার প্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার জানা গেছে ২৫ কোটি টাকার প্রতারণার বিষয়টি।

২৫ কোটি টাকা বিসিসিআইয়ের মতো পূর্ণ সদস্যের দলগুলোর কাছে বড় কিছু না হলেও সহযোগী দলগুলোর জন্য বড় কিছুই। ক্ষতির পরিমাণ আইসিসি থেকে প্রতি বছর ওডিআই স্ট্যাটাসসহ একটি সহযোগী সদস্যের পাওয়া অনুদানের চার গুণের সমান।

অনলাইন প্রতারণার বিষয়ে সহযোগী সদস্য দলের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বোর্ড কর্মকর্তা বলেছেন, ‘এটি সত্য নাও হতে পারে।’ এর সঙ্গে তিনি আরও বলেছেন, ‘ওয়ানডের ১৩ থেকে ২০ সহযোগী সদস্যের একটি দল ৫ কোটি থেকে ১০ কোটি টাকা পায়।’

      Bangladeshpost24.com

Previous articleট্যাক্স ফাঁকি দেওয়ায় বরখাস্ত ইসরায়েলের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
Next articleবলিউডে পা রাখছেন রাভিনা কন্যা