ক্রিস্টিনা ফার্নান্দেজ




অনলাইন ডেস্কঃ লাতিন আমেরিকার দেশ আর্জেন্টিনার বর্তমান ভাইস প্রেসিডেন্ট ক্রিস্টিনা ফার্নান্দেজ দে কির্চনারকে ছয় বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

৬৯ বছর বয়সী ক্রিস্টিনা ফার্নান্দেজ দুর্নীতি করে অবৈধভাবে নিজের বন্ধুকে সরকারি নির্মাণ কাজ পাইয়ে দিয়েছিলেন। এ ঘটনা জানাজানি হয়ে গেলে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয় এবং সবশেষে প্রমাণ পাওয়ায় ছয় বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আর্জেন্টিনার ইতিহাসে তিনিই প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্ট যিনি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় কারাদণ্ড পেলেন।

তবে ক্রিস্টিনাকে জেল খাটতে হবে না। দেশের ভাইস প্রেসিডেন্ট হওয়ায় তিনি এ সুবিধা পাবেন। এছাড়া এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন তিনি। কারাদণ্ড দেওয়ার পাশাপাশি আজীবনের জন্য সরকারি কোনো দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে ক্রিস্টিনাকে। যদিও বর্তমান রায়ের আপিল শেষ না হওয়া পর্যন্ত ভাইস প্রেসিডেন্ট থাকবেন তিনি।

নিজের বিরুদ্ধে এমন রায় দেওয়ার পর ক্রিস্টিনা দাবি করেছেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার অংশ হিসেবে তার বিরুদ্ধে এ অভিযোগ ও কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। আদালত রায় দেওয়ার পর নিজের প্রতিক্রিয়ায় আর্জেন্টাইন ভাইস প্রেসিডেন্ট বলেছেন, ‘বিচারবিভাগীয় মাফিয়ার’ ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন তিনি।

Previous articleআজ কক্সবাজারে ২৯ প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
Next articleআজও জয়ের আশা বাংলাদেশের