অনলাইন ডেস্কঃ ডলার নিয়ে অতিরিক্ত মুনাফার অভিযোগে ছয় ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে শোকজ করেছিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক। বাংলাদেশ ব্যাংক সেই ছয় ব্যাংকের ট্রেজারি প্রধানদের অভিযোগ থেকে অব্যহতি দিয়েছে। তারা কাজে ফিরতে পারবে।

“ডলারের বাজার কারসাজিতে জড়িত থাকার জন্য ব্যাংকগুলোর ট্রেজারি প্রধানরা ক্ষমা চেয়েছেন এবং ভবিষ্যতে তা না করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন-বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র”

ব্যাংক ছয়টি গত মে-জুন মাসে ডলার কেনাবেচায় যে মুনাফা করেছিল, তার অর্ধেক আয় খাতে নিতে বলা হয়েছে। বাকি অর্ধেক অর্থ সামাজিক দায়বদ্ধতা খাতে (সিএসআর) বরাদ্দ রাখতে বলা হয়েছে। আগে এই মুনাফার পুরোটাই আলাদা রাখতে বলেছিল বাংলাদেশ ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগের পরিচালক স্বাক্ষরিত চিঠিতে ব্যাংক ৬টিকে বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় এই সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

ব্যাংকগুলো হলো- বেসরকারি খাতের প্রাইম, ব্র্যাক, দি সিটি, ডাচ্-বাংলা, সাউথইস্ট ব্যাংক ও বিদেশি স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, “ডলারের বাজার কারসাজিতে জড়িত থাকার জন্য ব্যাংকগুলোর ট্রেজারি প্রধানরা ক্ষমা চেয়েছেন এবং ভবিষ্যতে তা না করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। ইস্যুটি সমাধান করা হয়েছে। সুতরাং, এই ছয়টি ব্যাংকের ট্রেজারি প্রধানরা এখন তাদের পদে ফিরে যেতে পারেন।”

 

Bangladeshpost24.com

Previous articleবাংলাদেশে বড় বিনিয়োগে যুক্তরাষ্ট্রকে আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী
Next articleচলমান বিক্ষোভকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বললেন ইরানের প্রেসিডেন্ট