বাংলায় সংবাদ 🔊

অনলাইন ডেস্কঃসুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থাকার ফলে বলিউডের তারকা অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ অনেকদিন থেকেই রয়েছেন বিতর্কে। কিছুদিন আগে সুকেশ এবং জ্যাকুলিনের একাধিক অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যার ফলে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন অভিনেত্রী। সুকেশ চন্দ্রশেখর ভারতের আলোচিত একজন প্রতারক।

সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক থাকার ফলে বলিউডের তারকা অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ অনেকদিন থেকেই রয়েছেন বিতর্কে। কিছুদিন আগে সুকেশ এবং জ্যাকুলিনের একাধিক অন্তরঙ্গ ছবি ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যার ফলে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন অভিনেত্রী। সুকেশ চন্দ্রশেখর ভারতের আলোচিত একজন প্রতারক।

ফাঁস হওয়া সেই ঘনিষ্ঠ ছবি নিয়ে আগে ইনস্টাগ্রামে বিবৃতি দিলেও এবার সরাসরি মুখ খুললেন তিনি। জানালেন, খুব জটিল সময় পার করছেন। এই সময়ে ভক্ত-শুভাকাঙ্খীদের সমর্থন প্রত্যাশা করছেন।

মিডিয়ার বন্ধুদের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে জ্যাকুলিন বলেন, ‘মিডিয়ার বন্ধুদের অনুরোধ, তারা যেন আমার ব্যক্তিগত ছবি প্রচার না করে; যা আমার গোপনীয়তায় হস্তক্ষেপ করে।

নিজেকে নির্দোষ দাবি করে জ্যাকুলিন বলেন, ‘মানুষ হিসেবে চাই, মানুষ আমাদের পছন্দ করুক, এটা খুব স্বাভাবিক ব্যাপার। কেউ যদি আপনাকে অপছন্দ করে, তাহলে আপনারও খারাপ লাগবে। আমি জানি না আমি কী ভুল করেছি। একজন তারকা হিসেবে আপনি বিখ্যাত, যখন কেউ আপনাকে অপছন্দ করে আর সেটা হাজার গুণ বেশি ছড়িয়ে পড়ে। আমি মনে করি, সবচেয়ে কঠিন বিষয় হলো বোঝা এবং মেনে নেওয়া। আপনাকে সত্যের মুখোমুখি হতে হবে, সবাই আপনাকে পছন্দ করবে না। তারা আপনার প্রতি কঠিন হবে। আপনাকে তা গ্রহণ করতে হবে।’

প্রতারক সুকেশের সঙ্গে জ্যাকুলিনের সম্পর্ক থাকায় বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল ভারত সরকার। পরে ৫০ লাখ রুপি জমা দেয়ার শর্তে বিদেশে যাওয়ার পান জ্যাকুলিন।

bangladeshpost24.com

 

Previous articleঢাকার দুই মেয়র পাচ্ছেন মন্ত্রীর মর্যাদা
Next articleসবার কাছে দোয়া চান শোয়েব আখতার