ছবি: সংগৃহীত




অনলাইন ডেস্কঃ  কথিত যুবলীগ নেতা ও বিতর্কিত ঠিকাদার এসএম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জি কে শামীমকে ঢাকা মহানগর আদালতে হাজির করা হয়েছে।

রোববার সকাল ৯টা ৩৫ মিনিটে তাকে কাশিমপুর কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়। এসময় তাকে রাখা হয় আদালতের হাজতখানায়।

ঢাকার ৪ নম্বর বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক শেখ ছামিদুল ইসলাম এদিন দুপুর ১২টার পর এ মামলার রায় ঘোষণা করবেন বলে রাষ্ট্রপক্ষের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর সালাহউদ্দিন হাওলাদার জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী সালাহউদ্দিন হাওলাদার বলেন, “এ মামলায় আমরা আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি। আমরা তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি প্রত্যাশা করছি।”

অস্ত্র মামলায় সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। এ মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনের তিনটি ধারায় অভিযোগ গঠন করা হয়েছে। জি কে শামীমের বিরুদ্ধে বৈধ অস্ত্র অবৈধভাবে প্রদর্শনের অভিযোগ আনা হয়েছে, যার সর্বোচ্চ শাস্তি সাত বছরের কারাদণ্ড।

আসামি পক্ষের আইনজীবীরা বলছেন, রাষ্ট্রপক্ষ আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ ‘প্রমাণ করতে সক্ষম হয়নি’। রায়ে আসামিরা খালাস পাবেন বলে তাদের প্রত্যাশা।

এর আগে ২৮ আগস্ট মামলাটির যুক্তিতর্কের শুনানি শেষে ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক শেখ ছামিদুল ইসলাম রায় ঘোষণার এ তারিখ ঠিক করেন।

মামলার অপর আসামিরা হলেন মো. জাহিদুল ইসলাম, মো. শহিদুল ইসলাম, মো. কামাল হোসেন, মো. সামসাদ হোসেন, মো. আমিনুল ইসলাম, মো. দেলোয়ার হোসেন ও মো. মুরাদ হোসেন।

 

Bangladeshpost24.com

Previous articleগৃহবন্দি চিনা প্রেসিডেন্ট জিংপিং
Next articleআবারও কোভিড আক্রান্ত হলেন ফাইজারের সিইও