ফয়জুল ইসলাম :র‍্যাব ৭ এর উপ অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ রেজওয়ানুর রহমান মিডিয়া অফিসার এডি নুরুল আফসার , বাংলাদেশ আমার অহংকার এই শ্লোগান সৃষ্টি নিয়ে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন বা র‍্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে বিভিন্ন ধরনের অপরাধীদের গ্রেফতারের ক্ষেত্রে জোড়ালো ভূমিকা পালন করছে।র‍্যাব সৃস্টিকাল থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদঘাটন,অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সার্বিক উন্নয়ন নিরলসভাবে কাজ করে চলছে।র‍্যাব ৭ চট্রগ্রাম অস্তধারী সন্তাসী,ডাকাত ধর্ষক,দুর্ধষ চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী,খুনি ছিনতকারী,অপহরনকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতার এবং বিপুল পরিমান অবৈধ অস্ত,গোলাবারুদ ও মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবল্বন করায় সাধারন জনগণের মনে আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।
গ্রেফতার কৃত আসামী মশিউর রহমান(১৯)দেশের স্বনামধন্য ও খ্যাতনামা মোবাইল ব্যান্ড কোম্পানি গুলোর ব্যাপক জনপ্রিয়তাকে পুজি করে বর্নিত কোম্পানি গুলোর নাম ব্যবহার করে ১৩টি অধিক ভু্য়া ফেসবুক পেইজ/ওয়েবসাইট খুলে নোয়াখালী জেলার সুধারাম থানাধীন মাষ্টার পাড়া পটোয়ারী বাড়ী মসজিদ সংলগ্ন একটি বিল্ডিংয়ের কক্ষে অবস্থান করে দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন মোবাইল ফোনের চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে অস্বাভাবিক মুল্য ছাড়ের প্রলোভন দেখিয়ে নগদ এ্যাপেসর মাধ্যমে গ্রাহকদের নিকট থেকে বিপুল পরিমান অর্থ আত্মসাৎ করে আসছে ।সেই সাথে দেশের স্বনামধন্য ও খ্যাতনামা মোবাইল ব্যান্ড কোম্পানি গুলোর সুনাম ক্ষুণ্ণ করছে।ক্রেতা/ভুক্তভোগী মাধ্যমে উক্ত বিষয়টি রিয়েলমি কোম্পানির কোম্পানির কতৃপক্ষ জানতে পেরে তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে উল্লেখিত প্রতারনা ব্যাপারে সততা মূলক পোষ্ট দেওয়া হয়।সেখানে বলা হয় একটি চক্র অনেক ভুয়া ফেসবুক পেইজ খুলে নগদ এ্যাপসের মাধ্যমে অবৈধ ভাবে অর্থ গ্রহন করছে।বিভিন্ন ভুক্তভোগী নিকট হতে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী উক্ত আসামী গ্রাহকের নিকট থেকে আনুমানিক ২৪,০০০০০ /-টাকা আত্মাস করেছে

উল্লেখিত আসামী প্রতারনার মাধ্যম বিভিন্ন মোবাইল ফোন কোম্পানির সুনাম নস্ট করা হয় সহ ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে ভুয়া ফেসবুক পেইজ ও ওয়েবসাইট খুলে সাধারণ গ্রাহকের অর্থ আত্মসাৎ করায় উক্ত বিষয়ে আইনগত  প্রতিকার চেয়ে রিয়েলমি মোবাইল ফোন কোম্পানি কৃতক
উল্লেখিত আসামী প্রতারনার মাধ্যম বিভিন্ন মোবাইল ফোন কোম্পানির সুনাম নস্ট করা হয় সহ ডিজিটাল ডিভাইস ব্যবহার করে ভুয়া ফেসবুক পেইজ ও ওয়েবসাইট খুলে সাধারণ গ্রাহকের অর্থ আত্মসাৎ করায় উক্ত বিষয়ে আইনগত প্রতিকার চেয়ে রিয়েলমি মোবাইল ফোন কোম্পানি কৃতক র‍্যাব ৭ চট্রগ্রাম বরাবর অভিযোগ করা হয়।উক্ত অভিযোগ প্রেক্ষিতে র‍্যাব ৭ চট্রগ্রাম গত ২৩ জুলাই ২০২২ রাত আনুমানিক ১১ঃ০৫ যটিকায় উল্লেখিত জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে আসামী পলাতক থাকায় তার কক্ষ থেকে ০২টি আইপি টেলিফোন ০১ টি রাউটার ০১ টি মনিটর ০১ টি সিপিউ ০১টি কিবোড ০১ টি মাউস ০১টি ইসলামী ব্যাংক ভিসা কার্ড ০১টি কারব্যাগ ০২টি ভিজিটিং কার্ড ও নগদ ১৩১৯০ টাকা উদ্ধার করে এবং আসামী পলাতক থাকায় আসামীকে গ্রেফতারে লক্ষে অভিযান অব্যাহত রাখে।
গোপন সংবাদ এর ভিত্তিতে র‍্যাব জানতে পারে আসামী মশিউর পিতা বেলাল হোসেন উওর পতেঙ্গায় এলাকায় অবস্থান করছে।উক্ত সংবাদ এর ভিত্তিতে ২৪ জুলাই আনুমানিক রাত ০৩ঃ ৪৫ মিনিটে র‍্যাব৭ এর একটি অভিযানিক দল বর্ণিত জায়গা থেকে আসামী মশিউর রহমান (১৯) কে গ্রেফতার করে।পরবতীতে উপস্থিত স্বাক্ষীতের সামনে আসামী তার অপরাধ অকপটে স্বাকীর করে। আসামীকে জিজ্ঞেসবাদে আরো জানা যায় মশিউর রহমান গত ৪/৫ মাস আগে আয়ারল্যান্ড বসবাসকারীন একজন প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিকের কাছ থেকে অনলাইনের মাধ্যমে ফেসবুক মাকেটিং এবং ওয়েব ডিজাইন কাজ শিখে।
গ্রেফতারকৃত আসামী সংকান্ত পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। ৭ চট্রগ্রাম বরাবর অভিযোগ করা হয়।উক্ত অভিযোগ প্রেক্ষিতে র‍্যাব ৭ চট্রগ্রাম গত ২৩ জুলাই ২০২২ রাত আনুমানিক ১১ঃ০৫ যটিকায় উল্লেখিত জায়গায় অভিযান পরিচালনা করে আসামী পলাতক থাকায় তার কক্ষ থেকে ০২টি আইপি টেলিফোন ০১ টি রাউটার ০১ টি মনিটর ০১ টি সিপিউ ০১টি কিবোড ০১ টি মাউস ০১টি ইসলামী ব্যাংক ভিসা কার্ড ০১টি কারব্যাগ ০২টি ভিজিটিং কার্ড ও নগদ ১৩১৯০ টাকা উদ্ধার করে এবংআসামী পলাতক থাকায় আসামীকে গ্রেফতারে লক্ষে অভিযান অব্যাহত রাখে।
গোপন সংবাদ এর ভিত্তিতে র‍্যাব জানতে পারে আসামী মশিউর পিতা বেলাল হোসেন উওর পতেঙ্গায় এলাকায় অবস্থান করছে।উক্ত সংবাদ এর ভিত্তিতে ২৪ জুলাই আনুমানিক রাত ০৩ঃ ৪৫ মিনিটে র‍্যাব ৭ এর একটি অভিযানিক দল বর্ণিত জায়গা থেকে আসামী মশিউর রহমান (১৯) কে গ্রেফতার করে।পরবতীতে উপস্থিত স্বাক্ষীতের সামনে আসামী তার অপরাধ অকপটে স্বাকীর করে। আসামীকে জিজ্ঞেসবাদে আরো জানা যায় মশিউর রহমান গত ৪/৫ মাস আগে আয়ারল্যান্ড বসবাসকারী একজন প্রবাসী বাংলাদেশী নাগরিকের কাছ থেকে অনলাইনের মাধ্যমে ফেসবুক মাকেটিং এবং ওয়েব ডিজাইন কাজ শিখে।
গ্রেফতারকৃত আসামী সংকান্ত পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের নিমিত্তে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।।

 

bangladeshpost24.com

Previous articleমোটরযানে সবার জন্য সিটবেল্ট ব্যবহার নিশ্চত করতে হবে
Next articleফেসবুকের ফিচার এখন হোয়াটসঅ্যাপে