Home শিরোনাম গাইবান্ধায় হাঁস নিয়ে মারামারির ঘটনায় নাক হারালো নারী

গাইবান্ধায় হাঁস নিয়ে মারামারির ঘটনায় নাক হারালো নারী

গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধা সদর উপজেলা বোয়ালী ইউনিয়ন এর ২নং ওয়ার্ডে এর দক্ষিণ ফলিয়া (নোয়াচরা ব্রিজ) সংলগ্ন এলাকায় একটি হাঁস নিয়ে মারামারি করে নাক হারালো এক নারী। অভিযোগে জানা যায়- আসামীগণ একদল দাঙ্গাবাজ ও সন্ত্রাসী। বসতবাড়ি সীমানা নিয়ে আসামীগণ এর সাথে দীর্ঘদিন যাবত মনোমালিন্য চলে আসছে। এমন্তঅবস্তায় গত ১৭/০৬/২০২২ তারিখে আসামীদের একটি হাঁস প্রতিবেশির জমিতে কীটনাশক মিশানো ঔষধ খেয়ে অসুস্থ হয়। উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে,ভুক্তভোগীদের উদ্দেশ্য করে গালিগালাজ করে। এক পর্যায়ে একই দিনে সন্ধ্যা ০৭ঃ৩০ ঘটিকার সময় আসামীগণ ধারালো ছুরি,লোহার রড,বাঁশের লাটি, সাইকেলের চেইন নিয়ে দলবদ্ধ ভাবে ভুক্তভোগীদের বসতবাড়ির ভিতরে প্রবেশ করে এবং এলোপাতারী আঘাত করে। আসামী- মোঃ নুরুল ইসলাম খুনের হুকুমকি দিয়ে তার সহকর্মীদের নিয়ে ভুক্তভোগী মোছাঃ পারভীন বেগম সহ পরিবারের সকল সদস্যদের ওপরে আক্রমণ করে তাদের আহত করে। ঘটনা স্থানে থাকা সন্ত্রাসী মোঃসুজন মিয়া ভুক্তভোগীর পড়নের কাপড় খুলে শ্লীলতাহানি করে। সেই সাথে সন্ত্রাসীদের হাতে থাকা দেশিও অস্ত্র দিয়ে আঘাত করলে ঘটনা স্থানেই কয়েক জনের শরীরের আঘাত লাগে, তাদের মধ্যে একজের নাক কেঁটে দেয় ও মাথায় আঘাত করে, ওপর জনের সারা শরীরের আঘাত করে।

পরে আশপাশের লোকজন এসে তাদের উদ্ধার করে,গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে ডাক্তাররা তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। জানা যায়-আসামী মোঃসুজন মিয়া,মোছাঃসুফিয়া বেগম ঘটনার সময় ভুক্তভোগীদের টাকা পয়সা সহ স্বর্ণ অলংকার ছিনিয়ে নেয়। এব্যাপার গাইবান্ধা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগীরা।

 

bangladeshpost24.com

Previous articleবিএনপি নির্বাচনে জয়ী হলে তাদের সরকার প্রধান কে হবেন, সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার
Next articleসাভারে তিতাসের অভিযানে এক কিলোমিটার ব্যাপী অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন