অনলাইন ডেস্ক: বাসায় মাদকদ্রব্য গাঁজা পাওয়ার ঘটনায় ইন্দোনেশিয়ায় বাংলাদেশ মিশনের উপ-প্রধান কাজী আনারকলিকে ঢাকায় প্রত্যাহার করে আনা হয়েছে। তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার ঘটনা দূর্ভাগ্যজনক ও বিব্রতকর বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।
মঙ্গলবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন অভিযুক্ত কর্মকর্তার বিষয়ে কয়েকদিন আগে থেকেই জানে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। এ বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে জানান তিনি।
জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে দক্ষিণ জাকার্তায় কাজী আনারকলির অ্যাপার্টমেন্টে বিপুল পরিমাণ গাঁজা রাখার অভিযোগে তাকে আটক করে ইন্দোনেশিয়া সরকারের মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ। এরপর তাকে আটক করা হলেও ভিয়েনা কনভেনশন অনুযায়ী কূটনৈতিক দায়মুক্তির কারণে ছেড়ে দেওয়া হয়।
পরে ইন্দোনেশিয়া সরকারের সাথে আলোচনার ভিত্তিতে তাকে ঢাকায় ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয় পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।
তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে কাজী আনারকলির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।
কূটনৈতিক দায়মুক্তি থাকলেও আনারকলির বাসায় ইন্দোনেশিয়া সরকারের মাদক নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষের অভিযান চালানোর বিষয়ে এক প্রশ্নে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “আমার প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া হচ্ছে, এখানে কোনো ভুল নাই।সেই বাসায় আরেকজন বিদেশি নাগরিক ছিল বলে আমরা শুনেছি। সেক্ষেত্রে পুলিশ যেতে পারে।
ইন্দোনেশিয়া সরকারকে এসময় সহযোগীতার জন্য ধন্যবাদ জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী। বলেন এ আমাদের ডিপ্লোমেট আমাদের কাস্টডিতে আছেন। এঘটনার পর্ণাঙ্গ তদন্ত হবে এবং সঠিক পথেই সেটি হবে।
সংবাদমাধ্যমের খবরে গাঁজা উদ্ধারের ঘটনায় আনারকলির অ্যাপার্টমেন্ট থেকে আটক অন্যজন নাইজেরিয়ার নাগরিক বলে জানা গেছে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, কাজী আনারকলি নিজে করেছেন, না তার বন্ধু করেছে- সেটা পরে তদন্তে আসবে। কিন্তু পুরো জিনিসটা দুর্ভাগ্যজনক ও বিব্রতকর।”
এর আগেও বাসার গৃহকর্মী নিখোঁজের ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলস থেকে কাজী আনারকলিকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছিলো। সে সময় যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসে বাংলাদেশের ডেপুটি কনসাল জেনারেল ছিলেন ২০তম বিসিএস পররাষ্ট্র ক্যাডারের এই কর্মকর্তা কাজী আনারকলি।

 

 

Bangladeshpost24.com

Previous articleছেলের মা হচ্ছেন পরীমনি, কেনাকাটায় মিললো আভাস!
Next articleজাতীয় ঐক্য গড়তে সরকারের বিরুদ্ধে যুগপৎ আন্দোলনে ঐক্যমত গণফোরাম-বিএনপির