অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশকে আগামী ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তোলার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ শনিবার সকালে ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্ণফুলী টানেল’ এর প্রথম টিউবের (দক্ষিণ পার্শ্ব) পূর্তকাজ সমাপ্তির উদযাপন অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান টানেলের কর্ণফুলী প্রথম টিউবের নির্মাণকাজ শেষ। দ্বিতীয়টির নির্মাণকাজও শেষ পর্যায়ে। চট্টগ্রামবাসীর সৌভাগ্য, চট্টগ্রামের মেট্রোরেলের ফিজিবিলিটি স্ট্যাডি শুরু হচ্ছে। চট্টগ্রামেও মেট্রোরেল শুরু হবে। ঢাকা-চট্টগ্রাম ফোর লেন সড়কে প্রধানমন্ত্রীর দুটি নির্দেশে দুটি সার্ভিস লেনের কাজ আমরা অচিরেই শুরু করব। এটা ছিল না, এটা ভুল হয়েছে। এটা হওয়া দরকার ছিল। জাপানি রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে কথা হয়েছে। আমি আশা করছি, জাইকা চট্টগ্রাম-কক্সবাজার সেতু নির্মাণকাজ শুরু করতে প্রয়োজনীয় ফান্ডিং করবে। চট্টগ্রামে আর কিছু বাকি নেই। সবই চট্টগ্রাম পেয়ে গেছে।

শুধু সমতলে না, পাহাড়ে সীমান্ত সড়ক সেনাবাহিনী করছে। ১৪ বছর আগের পাহাড় আর ২০২২ সালের পাহাড়—বান্দরবার, রাঙ্গামাটি, খাগড়াছড়ি এখনই চেনাই যায় না; বদলে গেছে শেখ হাসিনার ম্যাজিক লিডারশিপে। আজকে সারা দেশ উন্নয়নের জোয়ারে সত্যিকার অর্থে ভাসছে। সজীব ওয়াজেদ জয়ের সহয়তায় আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়েছি। আমাদের আগামী দিলেন লক্ষ্য স্মার্ট বাংলাদেশ। নেক্সট টার্গেট স্মার্ট বাংলাদেশ ২০৪১। প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ করব, আগামী নির্বাচনী ইশতেহারে এটা নিয়ে আসার জন্য, বলেন কাদের।

 

Bangladeshpost24.com

Previous articleকুমিল্লায় বিএনপির সমাবেশস্থল ও আশেপাশে মোবাইল ইন্টারনেটে ধীরগতি
Next articleবিএনপির সমাবেশঃ বাধ্য হয়ে নয়, যেখানে ভালো মনে হবে সেখানেই অনুমতি দেবে সরকার