অমিতাভ বচ্চন




অনলাইন ডেস্কঃ যত বড় ভক্তই হন না কেনো, যেখানে-সেখানে অমিতাভ বচ্চনের ছবি লাগিয়ে রাখা যাবে না। ভিডিও বা অডিওর মধ্যে হঠাৎ অমিতাভের কণ্ঠস্বর? শুনতে ভাল লাগলেও আর তা ব্যবহার করা যাবে না। এমনকি, বিনা অনুমতিতে তার নামটুকু অবধি নেওয়া যাবে না। এমনই নির্দেশ দিয়েছেন দিল্লি হাইকোর্ট।

ভারতীয় একাধিক গণমাধ্যম জানিয়েছে, এর আগে আপত্তি তুলে আবেদন জানিয়েছিলেন ‘বিগ বি’। তারপরই এই বিধিনিষেধ জারি হল ২৫ নভেম্বর থেকে।

নতুন আইন অনুসারে, অমিতাভের অনুমতি ছাড়া তার ছবি, নাম বা কণ্ঠস্বর কোনও রকম ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যাবে না। পাশাপাশি, তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক থেকে শুরু করে টেলিকম পরিষেবা প্রদানকারীদেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, এমন যা কিছু বাজারে রয়েছে সে সব তুলে নিতে হবে।

বিচারপতি নবীন চাওলা বলেন, ‘অমিতাভ বচ্চন একজন সুপরিচিত ব্যক্তিত্ব, যাকে বহু বিজ্ঞাপনের মুখ হিসাবে ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু সবগুলোই যে অনুমতি নিয়ে করা হয়েছে এমনটা নয়। এতেই ক্ষুব্ধ অভিনেতা।

নবীন সাফ জানান, অমিতাভের মতো খ্যাতনামীর মুখ দেখিয়ে কোনও সংগঠন বা ব্যক্তি বিনা অনুমতিতে পণ্যের প্রচার করতে পারবেন না। আদালতের কাছে অমিতাভের আর্জিও ছিল সেটাই। জানিয়েছিলেন, তিনি ‘ব্যবহৃত’ হতে চান না।

অমিতাভের পক্ষের আইনজীবী হরিশ সলভে বলেন, আমি দেখতে পাচ্ছি কী চলছে চারপাশে। কেউ টি-শার্ট বানিয়ে তাতে অমিতাভের মুখ বসিয়ে নিচ্ছেন। কেউ ডোমেন কিনে তার ওয়েবসাইটের নাম রাখছেন ‘অমিতাভবচ্চনডটকম’- আমরা এ রকমই হয়ে গেছি। এসব কারণেই তিনি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

Bangladeshpost24.com        

Previous articleবিশ্বকাপ দেখতে আসা পর্যটকদের কাছে ইসলাম প্রচার করছে কাতার
Next articleদুই ম্যাচের জন্য ছিটকে গেলেন নেইমার